Home Uncategorized মুজিববর্ষ ও জাতীয় শিশু দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার মো: জসীম উদ্দিন প্রধান-জাগো...

মুজিববর্ষ ও জাতীয় শিশু দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার মো: জসীম উদ্দিন প্রধান-জাগো তরুন

534
0
SHARE

জাপান প্রতিনিধি :
১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে জাপান আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান এক বার্তা দিয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় পরিণত করতে মুজিববর্ষে অঙ্গীকার গ্রহণে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এবং জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে শিশুদের কল্যাণে বর্তমানকে উৎসর্গ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান তার বার্তায় বলেন, ১৭ মার্চ, বাঙালি জাতির ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন। এ বছর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। বঙ্গবন্ধু আমাদের মাঝে নেই কিন্তু তার আদর্শ আমাদের চিরন্তন প্রেরণার উৎস। তার নীতি ও আদর্শ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে পড়ুক ,গড়ে উঠুক সাহসী, ত্যাগী ও আদর্শবাদী নেতৃত্ব এ প্রত্যাশা করি।

তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য দেশের ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব শিশুদের কল্যাণে বর্তমানকে উৎসর্গ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান বলেন, ‘জাতির পিতার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার প্রত্যয়ে আমরা অঙ্গীকারাবদ্ধ। রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ এবং ডেল্টা প্ল্যান-২১০০ বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমরা জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান বলেন, ‘এবারের জাতীয় শিশু দিবসের প্রতিপাদ্য “মুজিববর্ষে সোনার বাংলা, ছড়ায় নতুন স্বপ্নাবেশ; শিশুর হাসি আনবে বয়ে, আলোর পরিবেশ”। জাতির পিতার জীবন ও কর্ম আপামর জনসাধারণের কাছে তুলে ধরতে মার্চ ২০২০ থেকে মার্চ ২০২১ সময়কে “মুজিববর্ষ” হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশের পাশাপাশি ইউনেসকোর উদ্যোগে বিশ্বব্যাপী পালিত হচ্ছে “মুজিববর্ষ”। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ তৎকালীন ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাই তার জন্মদিনকে শিশুদের জন্য উৎসর্গ করে আমরা এ দিনটিকে “জাতীয় শিশু দিবস” ঘোষণা করেছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here