Home কচুয়া কচুয়ায় গুপ্তধন পাওয়া নিয়ে এলাকায় আলোচনার ঝড়!

কচুয়ায় গুপ্তধন পাওয়া নিয়ে এলাকায় আলোচনার ঝড়!

536
0
SHARE
কলসি পাওয়ার দাবীদার বিউটি আক্তার।

জাগো তরুণঃ
কচুয়া উপজেলার পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়নের প্রসন্নকাপ গ্রামে গুপ্তধন পাওয়া নিয়ে এলাকায় আলোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। গুপ্তধন পাওয়ার তথ্যটি সত্য না মিথ্যা এ প্রশ্ন এখন লোকমুখে।
প্রসন্নকাপ গ্রামের মজুমদার বাড়ির সালাউদ্দিনের স্ত্রী বিউটি আক্তার জানায়- প্রায় এক পক্ষ কাল পূর্বে দুপুর সাড়ে ১১টার দিকে আমি ছাগল বাঁধার জন্য পুকুর পাড়ে যাই। সেখানে গিয়ে পুকুর পাড় থেকে কিছুটা নিন্মাংশে দেখি মাটির নিচে একটি পুরনো কলসি আকৃতির পাত্র, যার অংশ বিশেষ মাটির উপরে। এসময় তাকিয়ে দেখি কিছুটা দূরে ওই পুকুর পাড়ে প্রসন্নকাপ গ্রামের বেপারী বাড়ির আবুল কালামের পুত্র সিয়াম হোসেন(১৬) কে। এ কলসিতে গুপ্তধন রয়েছে এ বদ্ধমূল ধারনায় আমি তড়িগড়ি করে পাশের খড়কুটা টেনে এনে কলসিটি ঢেকে রাখি, যাতে এটিকে অন্যরা দেখতে না পায়। যখন লোকজন থাকবেনা সে সময় কলসিটি উঠিয়ে নেব। এরপর পুকুর এলাকায় আমি ঘুরে ফিরে সময় কাটাই। হঠাৎ দেখি সিয়াম পুকুর পাড়ের ওই কলসি তোলার জন্য মাটি খনন করে সেটিকে তুলতেছে। আমি তাকে বাঁধা দিলে সে আমাকে হুমকি-ধমকি দিয়ে কলসিটি তুলে নিয়ে তড়িগড়ি করে বাড়ি চলে যায়। এরপর যতবারই কলসিটি আমি খুঁজে পেয়েছি এই দাবীতে উহা আমাকে ফেরত দেওয়ার জন্য সিয়ামকে বলি ততবারই সে ও তার নিকট আত্মীয়রা আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসে।
প্রসন্নকাপ গ্রামের বেপারী বাড়ির সিয়াম হোসেন জানায়- আমি আনুমানিক সাড়ে ১১টায় পুকুরের কচুরিপানা তোলার জন্য যাই কিন্তু পুকুর পাড়ে আমি কোন কলসি দেখি নাই। কিছুক্ষণ পুকুরের কচুরিপানা তোলার পর আমার বাবা খাঞ্চি নিয়ে আসে কচুরিপানা নেয়ার জন্য।
সিয়ামের বাবা আবুল কালাম জানায়- বিউটি আক্তারের কথাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। তার দেখানো চিহিৃত স্থানে এমন কোন কলসি বা কোন পাত্র জাতীয় কিছু আমরা দেখতে পাই নি। বিউটি আক্তার মিথ্যা কথা ছড়িয়ে দিয়ে আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।
এলাকার স্থানীয় লোকজন জানায়- ঘটনাটির সত্যতা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতেছি।
এদিকে কলসিটি না পেয়ে বিউটি আক্তার হা-হুতাশ করে চলছে। কলসিটি উদ্ধারের প্রদক্ষেপ নেয়ার জন্য সে প্রতিদিনই মানুষের দ্বারে দ্বারে হর্ণে হয়ে ঘুরছে।

গুপ্তধনের কলসি নিয়ে যাওয়া আলোচিত সিয়াম।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here